শুক্রবার, ০৩ এপ্রিল ২০২০, ০৪:৪৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনামঃ
ফুলবাড়িয়ায় ব্যবসায়ী সমিতি উপজেলা প্রশাসন ও সেনাবাহিনীর বৈঠক অসহায় পরিবারের পাশে ফুলবাড়ীয়া উপজেলা যুবলীগ খাদ্য সামগ্রী নিয়ে অসহায়দের বাড়ীতে ইউএনও আশরাফুল ছিদ্দিক ও ইউপি চেয়ারম্যান বাদল করোনা ভাইরাস জনসচেতনতায় ফুলবাড়িয়ায় ব্র্যাকের ৪০জন কর্মী মাঠে করোণা ভাইরাস প্রতিরোধে সচেতনত করতে এনায়েতপুর ইউনিয়নে ছাত্রলীগ সভাপতি করোণা প্রতিরোধে ফুলবাড়িয়া পৌর সভার জীবানুনাশক স্প্রে শুরু ফুলবাড়িয়ায় করোণা প্রতিরোধের আইন না মানায় ৪ব্যবসায়ীর জরিমানা ফুলবাড়িয়ায় করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে উপজেলা প্রশাসনের চিরুনি অভিযান করোণা ভাইরাস : উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মো: রফিকুল ইসলাম রাকিব‘র উদ্যোগ করোণা ভাইরাস : মাস্ক ও লিফলেট বিতরণ করলেন পৌর মেয়র গোলাম কিবরিয়া

প্রতারণার শিকার নুসরাতের স্বামী নিখিল!

ইন্টারনেট : কয়েকদিন আগেই বিয়ে সেরেছেন অভিনেত্রী নুসরাত জাহান ও কলকাতার ব্যবসায়ী নিখিল জৈন। বিদেশে ডেস্টিনেশন ওয়েডিংয়ের পর কলকাতার বিলাবহুল হোটেলেই হয়েছে তাদের রিসেপশন। এরই মধ্যে বিপদে পড়েছেন অভিনেত্রীর স্বামী নিখিল। জানা গেছে, আর্থিক প্রতারণার শিকার হয়েছেন তিনি।

ভারতের শীর্ষস্থানীয় এক গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, গত বৃহস্পতিবার রিসেপশনের ঠিক আগে প্রতারণার শিকার হন নিখিল। এজন্য থানা-পুলিশও করতে হয়েছে তাকে।

সাইবার ক্রাইম থানায় দায়ের হওয়া অভিযোগের ভিত্তিতে জানা গেছে, মাসখানেক আগে একটি মোবাইল সার্ভিস প্রোভাইডার সংস্থা থেকে ই-মেইল আসে নিখিলের কাছে। সেই মেইলে তাকে একটা ভিভিআইপি নম্বর অর্থাৎ মোবাইলের বিশেষ নম্বর দেওয়া হবে বলে জানানো হয়। এর জন্য নির্দিষ্ট অ্যাকাউন্টে টাকা জমা করার কথাও জানানো হয়।

এ রকম দুটি ই-মেইল আসে দাবি করে নিখিল বলেন, ই-মেইলে দেওয়া অ্যাকাউন্ট নম্বরে তিনি ৪৫ হাজার টাকা ট্রান্সফারও করে দেন। কিন্তু তার কাছে কোনো ভিআইপি নম্বর আসেনি। এর পরে খোঁজখবর নিয়ে জানতে পারেন, ওই ই-মেইল মেসেজটি আদতে ভুয়া।

যে মোবাইল সার্ভিস প্রোভাইডারের নামে ই-মেইল এসেছিল, তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন ‘রঙ্গোলি শাড়ি’ সংস্থার ডিরেক্টর নিখিল। কিন্তু তারা স্পষ্টতই জানিয়ে দেয়, ওই ধরনের কোনো মেসেজ তারা পাঠায়নি। এর পরই সাইবার ক্রাইম থানায় অভিযোগ দায়ের করেন তিনি।

সচরাচর কোনো মোবাইল সার্ভিস প্রোভাইডার কোম্পানির বিশেষ নম্বর নিতে গেলে গ্রাহককে বাড়তি টাকা খরচ করতে হয়। এই নম্বরগুলো বিশেষ বৈশিষ্টযুক্ত হওয়ায় ভিভিআইপি নম্বর বলা হয়। সেই ফাঁদেই পা দিয়েছিলেন নিখিল। আসলে এরকম একটি চক্র রয়েছে, যারা এভাবে ফাঁদ পেতে মানুষের কাছ থেকে টাকা নেয়।

Please Share This Post in Your Social Media

কপিরাইট © ফুলবাড়িয়ানিউজ২৪ ডট কম ২০২০
Design & Developed BY A K Mahfuzur Rahman