৬০ ঘণ্টা সুরঙ্গে আটকা ৪০ শ্রমিক, দেওয়া হচ্ছে অক্সিজেন ও খাবার


প্রকাশের সময় : নভেম্বর ১৫, ২০২৩, ১১:০২ AM
৬০ ঘণ্টা সুরঙ্গে আটকা ৪০ শ্রমিক, দেওয়া হচ্ছে অক্সিজেন ও খাবার

ভারতে ৬০ ঘণ্টা ধরে সুরঙ্গে আটকা পড়ে আছেন ৪০ জন শ্রমিক। একটি চিকন পাইপের সাহায্যে তাদের অক্সিজেন, খাবার ও পানি সরবরাহ করা হচ্ছে। কিন্তু এখনো উদ্ধারে কোনো ইতিবাচক ফল মেলেনি। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদন থেকে এই তথ্য জানা যায়।

রবিবার সকালে ভারতের উত্তরাখন্ডে ওই সুরঙ্গ ধসে ৪০ জন শ্রমিক আটকা পড়েন। তবে তারা সবাই নিরাপদে আছেন বলে জানিয়েছে দেশটির সরকার। প্রায় ২৪ ঘণ্টা পর সোমবার তাদের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপনে সক্ষম হন উদ্ধারকর্মীরা। দেশটির জাতীয় দুর্যোগ প্রতিরোধ বাহিনীর সিনিয়র কমান্ডার করমবীর সিং ভান্ডারি বলেন, সুরঙ্গে আটকে পড়া ৪০ জন কর্মীই বেঁচে আছেন। তাদের খাবার ও পানি সরবরাহ করেছি আমরা।

আজ মঙ্গলবার শ্রমিকদের সুপারভাইজর গাব্বার সিং নেগি তার ছেলে আকাশের সঙ্গে কথা বলেন। আকাশ জানান, তারা বাবা জানিয়েছেন যে ছেলের সঙ্গে কথা বলার পর তিনি মানসিকভাবে ভালো বোধ করছেন। তার সঙ্গে থাকা ৩৯ জনকে সাহায্য করছেন তিনি।

নেগির বড় ভাই মহারাজ বলেন, তার ভাই ২২ বছর ধরে সুরঙ্গে কাজ করছেন। তার অনেক অভিজ্ঞতা আছে এবং বাকিদের নিরাপদ রাখতে পারবেন তিনি। মালিকানা প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, পাইপের মাধ্যমে তাদের খাবার, পানি ও চা দেওয়া হচ্ছে।

সোমবার একটি কাগজের টুকরো দিয়ে উদ্ধারকর্মীদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে সমর্থ হন শ্রমিকরা। পরবর্তীতে রেডিও যোগাযোগ স্থাপন করা হয়। শ্রমিকরা বেঁচে আছে জানার পর সুরঙ্গে ছিদ্র দিয়ে অক্সিজেন সরবরাহ করছে উদ্ধারকর্মীরা। ভারতের ইয়ামুন্ত্রি মহাসড়কের কাছেই এই সুরঙ্গ অবস্থিত। রবিবার সকালে এটি ধসে পরে। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানায়, সুরঙ্গটি প্রায় ২০০ মিটার দীর্ঘ। এখন এর সামনে ধ্বংসস্তূপ পরে আছে।

উদ্ধার অভিযান অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ বলে জানিয়েছে ভারতের কর্মকর্তারা। তারা বলছেন মেশিন ব্যবহার করলে মাটি ডেবে যেতে পারে, ছাদ ধসে পড়তে পারে। তাই তারা পরিকল্পনা করে ধীরে ধীরে উদ্ধার কাজ পরিচালনা করতে চাইছেন।

https://www.bkash.com/