গৌরীপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ পুলিশ প্রহরায় অফিস করছেন


প্রকাশের সময় : জুন ১৪, ২০১৬, ১১:৪৮ AM
গৌরীপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ পুলিশ প্রহরায় অফিস করছেন

Gauripur-Assam-13238গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি ঃ ময়মনসিংহের গৌরীপুর সরকারি কলেজে মাস্টার রোল কর্মচারীদের বিভিন্ন ন্যায্য দাবী আদায়ের লক্ষে বিক্ষোভের মুখে অত্র কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ হাবিবুর রহমান আকন্দ বর্তমানে পুলিশ প্রহরায় অফিস করছেন। অত্র কলেজের অধ্যক্ষ কর্তৃক অসৌজন্য মূলক আচরন সহ বেতন ভাতাদি নিয়ে স্বেচ্ছাচারিতামূলক কর্মকান্ডের প্রতিবাদে মাষ্টাররোল কর্মচারীরা সোমবার (১৩ জুন) কলেজের বিভিন্ন কক্ষে তালা ঝুলিয়ে কর্মবিরতি পালন করে। পরদিন মঙ্গলবার হাবিবুর রহমান আকন্দ কলেজের বিভিন্ন তালা ভেঙ্গে পুলিশ প্রহরায় অফিস করেন। জানা গেছে, কলেজের ২১ জন কর্মচারী তাদের বিভিন্ন ন্যায্য দাবি আদায়ের লক্ষে গত মাসে ৫দিন কর্মবিরতির মাধ্যমে বিক্ষোভ করে। এসময় হাবিবুর রহমান কর্মচারীদের দাবি পূরনে আশ্বাস দিলে তারা বিক্ষোভ কর্মসূচী স্থগিত করে কর্মস্থলে যোগদান করে। পরে কলেজের কর্মচারীদের সমস্যা সমাধান সহ বেতন ভাতদি বৃদ্ধির লক্ষে গত ১৫ মের মধ্যে অধ্যক্ষ বরাবরে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মোঃ সাজ্জাদ কবীরকে আহবায়ক করে ৩ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করা হয়েছিল। উক্ত কমিটি যথাসময়ে প্রতিবেদন দাখিল কররেও বর্তমানে অজ্ঞাত কারেন কর্মচারীদের দাবি পূরনে নানা তালবাহানা সহ তাদের সাথে অসৌজনমূলক আচরন করছেন অধ্যক্ষ হাবিবুর রহমান। এতে কর্মচারীরা ক্ষুব্ধ হয়ে সোমবার কলেজের অধ্যক্ষের কক্ষসহ বিভিন্ন কক্ষে তালা ঝুলিয়ে কর্মবিরতি পালন করছে। গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আখতার মোর্শেদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে সকলের সাথে কথা বলে সমস্যা সমাধানের চেষ্টা চালাচ্ছেন। এব্যাপারে গৌরীপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ সাংবাদিকদের জানান, মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ৩০ এপ্রিল অধ্যক্ষদের মিটিংয়ে কলেজের কর্মচারীদের দৈনিক ভিত্তিক মুজরীতে বেতন পরিশোধের সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়েছে। একারনে কর্মচারীদের মাঝে ক্ষুব্দ প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।

ভোক্তভোগীরা জানান, কলেজের অধ্যক্ষ অনিয়মতান্ত্রিক ভাবে কর্মচারীদের বেতন ভাতাদি বন্ধ রেখে তাদেরকে দিয়ে কলেজের আঙ্গিনায় ও ছাদে ঘাস পরিস্কারের কাজ করাচ্ছেন। এদিকে নতুন এই অধ্যক্ষ কলেজে যোগদানের পর থেকেই বেতন ভাতাদি বন্ধ রাখায় মাস্টার রোল কর্মচারীরা তাদের পরিবার পরিজন নিয়ে অনাহারে অর্ধাহারে জীবন যাপন করছে। জানা গেছে গৌরীপুর সরকারি কলেজে মাস্টার রোলে মোট ২১ জন কর্মচারী বর্তমানে কর্মরত রয়েছে। সম্প্রতি হাবিবুর রহমান আকন্দ অধ্যক্ষ হিসেবে কলেজে যোগদানের পর থেকে মাস্টার রোল কর্মচারীদের প্রতি মাসের ৪ শুক্রবার কর্মদিবসের টাকা কর্তন করে বেতন পরিশোধের কথা জানিয়ে বলেন যদি এ নিয়ম মানলে চাকুরী কর অন্যথায় ছেড়ে দাও। এসময় অধ্যক্ষের এই অনিয়মতান্ত্রিক ও স্বেচ্ছাচারিতামূলক বক্তব্যের প্রতিবাদ করে কর্মচারীরা ৪ মে থেকে বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন করে আসছে। #
মশিউর রহমান কাউসার
০১৭১৭-৭৮৫৫৪৮

https://www.bkash.com/