শোলাকিয়া : আজকের ডিউটিটা খুবই রিস্কের: বিকেলে বাড়ীতে লাশ


প্রকাশের সময় : জুলাই ১০, ২০১৬, ১২:৪৫ PM
শোলাকিয়া : আজকের ডিউটিটা খুবই রিস্কের: বিকেলে বাড়ীতে লাশ

100000আব্দুস ছাত্তার, ভাটিপাড়া বালাশ্বর থেকে ফিরে : নতুন পাকা ঘরে উঠা, বিয়ে, মিলাদ সকল কিছু ছাপিয়ে না ফেরার দেশে সন্ত্রাস প্রতিরোধে জীবন দিয়ে গেলেন পুলিশ কনস্টেবল জহিরুল ইসলাম তপু (২৪)। বাবা প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা মরহুম আব্দুল মজিদ ৬সন্তানের সবার ছোট তপু। আব্দুল মজিদ স্ত্রী, ৪বোন ও ২ভাই কে রেখে না ফেরার দেশে পাড়ি দিয়েছেন ২০১৩সনে।
ঈদের দিন সকাল ৭টার দিকে বড় বোনকে ফোন করে জানিয়েছিলেন আজকের (ঈদের দিন) ডিউটি খুবই রিক্সের, খেয়েছ কিনা জানতে চাইলে, তপু বলেছিলেন ভোর ৪টার সময় মিষ্টি খেয়েছি। ডিউটি শেষে বিকেলে গ্রামের বাড়ীতে ফিরার কথা ছিল তপুর। ফিরে পরদিন শুক্রবার নতুন ঘরের মিলাদ, মামাতো ভাই ও চাচাতো বোনের বিয়ের দাওয়াতে যোগদান করার কথা। এর আগেও নিজ দায়িত্ব পালনকালে হেফাজতের সমাবেশের দিন বোনকে ফোন করে বলেছিলেন, আপু কেয়ামত কি জিনিস আজ খুব কাছ থেকে দেখতেছি- তবে মাকে এসব কথা বলা যাবে না, কারণ মা তাহলে টেনসন করবে।
শনিবার (৯জুলাই) দুপুর ২টার সময় উপজেলার দেওখোলা ইউনিয়নের ভাটিপাড়া বালাশ্বর গ্রামে নিহত তপুর মমতাময়ী মা জোবেদা খাতুনের সঙ্গে কথা হলে তিনি জানান- ২০১৩সনে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে স্বামী মুক্তিযোদ্ধা মরহুম আব্দুল মজিদ মারা যাওয়াতে এত কষ্ট হয়নি তার। ৪মেয়ে ২ছেলে সন্তানের জননী হলেও সবচেয়ে বেশি আদর করতেন তপুকে। তপুও ছুটিতে মায়ের সাথে এক বিছানায় ঘুমাতেন। মাকে বলতেন শুটকী মাছ আর শাক সবজি হলে খাওয়ার জন্য আর কিছুই লাগবে না। আমার বাবা আর কোনদিন এসব খাবার চাইবে না। মানুষ মরার একটা সময় আমাকে এভাবে রাইখা (রেখে) তপুর চলে যাওয়া আমি কিছুতেই মেনে নিতে পারছি না। ঈদের সকাল ৯টার দিকে টিভির খবরে শুনতে পাই আমার তপু মারা গেছে। আমার বাবা বিয়ে করবে বলে এবছর বিল্ডিং এর কাজ শুরু করেছে, তড়িঘড়ি করে কাজ শেষ করা হইতাছে। আমার বাবা বিল্ডিং ঘরে একদিনও ঘুমাইতে পাইল না। আমার বাবাকে যারা হত্যা করেছে তাদের ফাঁসি চাই।
তপুর চাচা কামরুজ্জামান সেলিম মাস্টার বলেন, তপু তাঁর বাবা মায়ের অত্যন্ত আদরের এবং সে অত্যন্ত সুসন্তান ছিল।
উল্লেখ্য, গত বৃহ¯পতিবার (৭জুলাই) সকাল সাড়ে ৯টায় কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়ার কাছে আজিমুদ্দিন হাইস্কুল সংলগ্ন এলাকায় দুর্বৃত্তদের হাতবোমা বিস্ফোরণে ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান পুলিশ কনস্টেবল জহিরুল ইসলাম তপু।

https://www.bkash.com/