ভালুকায় একটি ব্রিজের অভাবে ৩ইউনিয়নের মানুষের যত দুর্ভোগ


প্রকাশের সময় : সেপ্টেম্বর ৪, ২০১৬, ১২:৪৬ PM
ভালুকায় একটি ব্রিজের অভাবে ৩ইউনিয়নের মানুষের যত দুর্ভোগ

BRIGE PICTURE 1জাহিদুল ইসলাম খান ভালুকা প্রতিনিধিঃ ভালুকা উপজেলার মেদুয়ারী ,ডাকাতিয়া ও মল্লিকবাড়ী ইউনিয়নের ত্রি সীমানা ঘেষে বয়ে যাওয়া খিরু নদীর ভয়রাটেক ঘাট । ঘাটের দু পাশের বসবাসরত হাজার হাজার মানুষ একটি ব্রিজের জন্য বছরের পর বছর ধরে আশায় বুক বেধে থাকলেও তাদের দুঃখ দুর্দশার দিকে আজ পর্যন্ত কেউ ফিরে তাকায়নি । শত শত বছর ধরে নিজেদের উদ্যোগে তৈরী বাশের সাকো দিয়ে চলছে তাদের যাতায়াত আর বর্ষায় একমাত্র অবলম্বন নৌকা ।যদি কোন মহিলার প্রসব ব্যাথা দেখা দেয় বা কোন শিশু .বৃদ্ধ অসুস্থ হয় তাকে লোাকজনের মাথায় করে নদী পার করতে হয় । নদীর উপারে গ্রাম গুলোতে প্রচুর পরিমানের ধান,ও সবজী উৎপাদন করে স্থানীয় কৃষকরা । যাতায়াত ব্যবস্থা ভাল না থাকায় ন্যায্য মূল্যো পাই না উপারের কৃষকরা ।শতশত মণ ধান ও সবজী কৃষকরা নিজ উদ্যোগে বহু কষ্টে এপারের বিখ্যাত বাজার মল্লিকবাড়ীতে এনে বিক্রি করতে হয় । নদীর এপারে ২টি হাইস্কুল ১ টি কলেজ .৩ টি দাখিল মাদ্রাসা ও ১টি মহিলা মাদ্রাসা থাকায় প্রতিদিন শত শত ছাত্র ছাত্রী বহু কষ্টে নদী পার হয়ে নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানে আসে । সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় ,এই ঘাটে দু পাশের লোকের যেন প্রতিদিন পার হতে যুদ্ধে লিপ্ত হতে হয় ।একটু বূষ্টি হলে তো দুর্ভোগের শেষ নাই । কাদামাটি যেন তাদের নিত্য দিনের সঙ্গী । ভয়রাটেকের এই ব্রিজটি হলে দুই পারের হাজার হাজার লোকের দুর্ভোগ লাগোব হতো । এই এলাকার প্রতিটি লোকের এখন একটাই দাবি অনতিবিলম্বে যাতে এই ব্রিজটি করা হয় । সেজন্য সরকারের প্রতি জোর দাবি দুই পারের বসবাসরত সাধারন ও প্রান্তীক খেটে খাওয়া মানুষের ।

এ ব্যাপারে ভালুকা উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ কবির উদ্দিন শাহ বলেন এখানে ব্রিজ করার মত আপাতত কোন চাহিদা পত্র আমাদের কাছে আসে নাই ।

ভালুকা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা বলেন ,আমরা নিজেরাই উদ্যোগ নিয়ে এখানে একটি ব্রিজ নির্মানের জন্য এলজিইডি মন্ত্রনালয়ে চাহিদা পত্র দিয়েছি । আশা করি এই বছরের মধ্যে ওখানে ব্রিজ নির্মাণ হয়ে যাবে ।

https://www.bkash.com/