ব্রিটিশ নারীর কাছে হেরে গেলেন মুসা ইব্রাহীম


প্রকাশের সময় : জানুয়ারী ২৮, ২০১৮, ২:৪৫ PM
ব্রিটিশ নারীর কাছে হেরে গেলেন মুসা ইব্রাহীম

ফুলবাড়িয়া নিউজ 24 ডট কম : বাংলা চ্যানেল পাড়ি দিলেন ব্রিটিশ সাংবাদিক বেকি হোর্সব্রাগ। সাঁতারের মাধ্যমে টেকনাফের ফিশারিজ জেটি থেকে সেন্টমার্টিনসে পৌঁছতে বেকির সময় লেগেছে চার ঘণ্টা ৪৫ মিনিট।
রোববার (২৮ জানুয়ারি) সকাল ৯টা ২০ মিনিটে বাংলা চ্যানেলে সাঁতার শুরু করেন বেকি। দুপুর ২টার দিকে তিনি সেন্টমার্টিনসে পৌঁছান। এর মাধ্যমে বেকি জলপথে সর্বোচ্চ ১০ মাইল পাড়ি দিয়ে নিজের রেকর্ড গড়লেন।
পানিতে ডুবে শিশু মৃত্যুরোধ ও সচেতনতা তৈরির জন্য বেকি হোর্সব্রাগ এই দীর্ঘ সাঁতার কাটলেন। গত ২৫ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে বেকি হোর্সব্রাগ বলেন, ‘১৯৫৮ সালে ব্রজেন দাশ একজন বাংলাদেশি হিসেবে ইংলিশ চ্যানেল অতিক্রম করেছিলেন। আর আমি প্রথম ব্রিটিশ নাগরিক হিসেবে বাংলা চ্যানেল অতিক্রম করতে এসেছি। আমি সত্যি অভিভূত।’

আজ বাংলা চ্যানেল পাড়ি শেষে বেকি সারাবাংলাকে বলেন, এটি আমার জীবনের অন্যতম একটি অর্জন। আমি এর জন্য অনেক কঠোর পরিশ্রম করেছি। এর আগে ৯ কিলোমিটার সাঁতরানোর অভিজ্ঞতা আছে কিন্তু এত বড় পথ পাড়ি দিইনি। এই অর্জনে আমি অত্যন্ত খুশি যে, গত কয়েকমাস ধরে যে কঠোর পরিশ্রম করছি তা কাজে লাগাতে পেরেছি।
বেকির সহযাত্রী এভারেস্টজয়ী প্রথম বাংলাদেশি মুসা ইব্রাহীম সারাবাংলাকে বলেন, বেকি সাঁতার শেষ করল । এটা অনেক বড় সাফল্য। কারণ প্রথমবার এসেই তিনি তার লক্ষ্য অর্জন করতে পেরেছেন। তার সাফল্যের হাত ধরে আরও অনেক বিদেশি এখানে সাঁতরাতে আসবেন আমি সেটাই কামনা করি।’
‘আমরা যেমন ইংলিশ চ্যানেলের নাম জানি তেমনি করে আমাদের বাংলা চ্যানেলের নাম ছড়িয়ে পড়বে বিশ্বে,’ বলেন মুসা ইব্রাহীম।


তিনি বলেন, পুরো বাংলাদেশে যারা সাঁতারে আগ্রহী, তাদের সাঁতার শিখিয়ে এই বাংলা চ্যানেলে নিয়ে আসার উদ্যোগ চলছে। এর ভেতর দিয়ে আমরা বাংলাদেশকে একটি স্পোর্টস লাভিং কান্ট্রি হিসেবে পরিচিত করতে চাই।
‘আমি বলতে চাই, যদি কারো সেই দৃঢ় মানসিকতা থাকে তাহলে সে বের হয়ে আসতে পারে, চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে পারে।’ সাংবাদিকতার পাশাপাশি সুইমিং ইন্সট্রাক্টর হিসেবেও কাজ করেন বেকি হোর্সব্রাগ। মার্কিন বার্তা সংস্থা অ্যাসোসিয়েটেড প্রেসের (এপি) জন্য সাংবাদিকতা করছেন।
সূত্র- সারাবাংলা

https://www.bkash.com/