বিয়ে করতে অস্বীকার করায় ট্রেনের নিচে প্রেমিকার আত্মহত্যার চেষ্টা


প্রকাশের সময় : ফেব্রুয়ারী ২২, ২০১৮, ১:২২ PM
বিয়ে করতে অস্বীকার করায় ট্রেনের নিচে প্রেমিকার আত্মহত্যার চেষ্টা

মশিউর রহমান কাউসার, গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি ঃ প্রেমিক বিয়ে করতে অস্বীকার করায় ট্রেনের ইঞ্জিনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে স্কুল শিক্ষার্থী প্রেমিকা আত্মহত্যার চেষ্টার চালায়। এতে ওই প্রেমিকা অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পেলেও তার ডান হাতের চারটি আঙ্গুল ইঞ্জিনের নিচে কাটা পড়ে। বর্তমানে সে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে ময়মনসিংহের গৌরীপুর রেলওয়ে জংশনে এ ঘটনাটি ঘটে। জানা গেছে, নেত্রকোনা সদর উপজেলার দক্ষিণ বিশিউড়া ইউনিয়নের বিয়ার আলী গ্রামের উজ্জল মিয়ার কন্যা কলি আক্তার। কলির নানা বাড়ি ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার ঠিকুরি গ্রামে। নানা চাঁনু মড়লের বাড়িতে থেকে সে লেখাপড়া করে আসছে। বর্তমানে কলি স্থানীয় গোবিন্দপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্রী। নানার বাড়িতে আসা যাওয়ার সুবাধে দুঃসম্পর্কের আতœীয় রোমন (২২) নামে যুবকের সাথে প্রায় আট মাস পূর্বে পরিচয় হয় তার। এক পর্যায়ে তাদের মাঝে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। রোমন গৌরীপুর উপজেলার ডৌহাখলা ইউনিয়নের কাটাশিয়া গ্রামের আইন উদ্দিনের পুত্র। তার মামার শুশুর বাড়ি হচ্ছে কলির নানার বাড়ি। ঘটনার আগের দিন রাতে তারা দু’জন এক সঙ্গে রাত্রিযাপন করে। পরদিন বিয়ের আশ্বাসে কলিকে খবর দিয়ে গৌরীপুর রেলস্টেশন এলাকায় নিয়ে আসে। এসময় দু’জনের মাঝে দীর্ঘক্ষণ কথাবার্তার এক পর্যায়ে কলিকে বিয়ে করতে অস্বীকার করে প্রতারক প্রেমিক রোমন। এ দুঃখ ও বেদনা সহ্য করতে না পেরে ওই দিন বিকেল ৩ টার দিকে রেলওয়ে প্রকৌশলী কার্যালয়ের সামনে আন্তঃনগর বিজয় এক্সপ্রেস ট্রেনের বদলরত ইঞ্জিনের নিচে ঝাঁপ দেয় কলি। এতে সে অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পেলেও হারাতে হয় তার ডান হাতের চারটি আঙ্গুল। স্থানীয় লোকজন গুরুতর জখম অবস্থায় কলিকে প্রথমে গৌরীপুর হাসপাতালে ভর্তি করে। অবস্থা গুরুতর হওয়ায় ওইদিনই তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল হাসপাতালে নিয়ে যায় তার স্বজনরা। বর্তমানে সে ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। কলির আপন চাচা সাদ্দাম হোসেন সাংবাদিকদের এ ঘটনাটি জানান। তিনি অভিযোগ করে বলেন তার ভাতিজির এ দুর্ঘটনার জন্য দায়ী উল্লেখিত প্রতারক রোমন। তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি চলছে। এ বিষয়ে জানতে চেয়ে প্রেমিক রোমনের সাথে মুঠো ফোনে যোগাযোগ করা হলে প্রথমে নিজের সঠিক পরিচয় দিলেও পরে তা গোপন করে বলে এটা রং নাম্বার (০১৭৮২-৪৯৪৬৮৪)। #

https://www.bkash.com/