বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী নিয়ে মত বিনিময় সভা


প্রকাশের সময় : অক্টোবর ১০, ২০২৩, ৫:৫১ PM
বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী নিয়ে মত বিনিময় সভা

ডেস্ক রিপোর্ট  : হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী, স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান – যিনি তার জীবনের শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত ভালোবেসে গেছেন এ দেশকে, এদেশের সাধারণ মানুষকে। শিক্ষা, সংস্কৃতি, রাজনীতি, জাতি গঠনে বঙ্গবন্ধুর ভূমিকা নিয়ে রচিত হয়েছে অনেক বই ও গবেষণা কর্ম।

বাংলাদেশের স্বাধীনতার এই মহানায়কের জীবন ও আদর্শ নিয়ে এখনও চলছে নানা গবেষণা এবং মুক্তবুদ্ধির চর্চা। আর এই সকল গবেষণার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে তাঁরই রচিত অটোবায়োগ্রাফি “অসমাপ্ত আত্মজীবনী”।
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর জ্ঞান, প্রজ্ঞা, স্বাধীন চিন্তাধারাকে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ে শিক্ষার্থীদের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে জেলা প্রশাসক ও বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো: মোস্তাফিজার রহমান এর উদ্যোগে সমগ্র ময়মনসিংহ জেলায় শুরু হয়েছে কর্মসূচি বাস্তবায়নে কর্মপন্থা নির্ধারণ সংক্রান্ত মত বিনিময় সভা।

 

 

“বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী পড়ি- নিজেকে গড়ি” জ্ঞান ও দর্শন প্রাচুর্যে সমৃদ্ধ এই বইটির মাধ্যমে শিশুদের মাঝে দেশপ্রেম সৃজন ও উন্নত মূল্যবোধ সৃষ্টিতে সম্মানিত শিক্ষকবৃন্দের অভিজ্ঞতা, ধারণা, শিখন ও পঠন কৌশল নিরূপণে ফুলবাড়িয়া উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে মঙ্গলবার দিনব্যাপি প্রশিক্ষণ কর্মশালার আয়োজন করা হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহি অফিসার মোহাম্মদ নাহিদুল করিম। এ সময় উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শরাফ উদ্দিন শর, সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. আবুল কালাম আজাদ, সাদ্দাম হোসেন সহ অন্যান্য সহকারী শিক্ষা অফিসারবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
কর্মশালায় প্রাথমিক পর্যায়ের মোট ৭টি ক্লাস্টারের ১৫০ জন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষক অংশগ্রহণ করেন। কর্মশালায় ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ বইটির পঠন কৌশল, পাঠ সহায়িকা নির্বাচন এবং বইটির মূল্যবোধ বিস্তৃতির কর্মকৌশল নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়।
এ উদ্যোগের আওতায় ফুলবাড়িয়া উপজেলার ৫২টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের সমন্বয়ে ৪র্থ ও ৫ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের “অসমাপ্ত আত্মজীবনী” বইটি পড়তে উৎসাহিত করা হচ্ছে। শিক্ষকগণ বইটি থেকে নির্বাচিত অংশবিশেষ শিক্ষার্থীদের পড়ে শোনাবেন এবং মর্মবাণী অনুধাবনে সহায়তা করবেন। উপজেলা পর্যায়ে প্রকল্পটি শতভাগ বাস্তবায়নে সহায়তা করছেন উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা পরিবার।

https://www.bkash.com/