ফুলবাড়িয়ায় নিজ এলাকায় সংবর্ধিত হয়ে যে বার্তা দিলেন আব্দুল মালেক সরকার এমপি


প্রকাশের সময় : জানুয়ারী ১৯, ২০২৪, ৮:২৩ PM
ফুলবাড়িয়ায় নিজ এলাকায় সংবর্ধিত হয়ে যে বার্তা দিলেন আব্দুল মালেক সরকার এমপি

ফুলবাড়িয়া : মো. আব্দুল মালেক সরকার ইউনিয়ন পরিষদ থেকে উপজেলা চেয়ারম্যান অতপর জাতীয় সংসদ সদস্য। আর সেই সিংহ পুরুষকে বৃহস্পতিবার (১৮ জানুয়ারি) নিজ জন্মস্থান আন্ধারিয়াপাড়া, ফুলবাড়িয়া, ময়মনসিংহে গণ সংবর্ধনা দেওয়া হয়। সংবর্ধনায় অংশ নিয়ে যে বার্তা দিলেন তিনি।
এলাকাবাসীর উদ্যোগে আন্ধারিয়াপাড়া মারকাজ মসজিদের সামনে আয়োজিত গণ সংবর্ধনায় আব্দুল মালেক সরকার বলেন, আমি আপনাদের মানুষ, আমাকে সংবর্ধনা দেওয়ার প্রয়োজন নেই। বরং আপনাদেরকে সংবর্ধনা দেওয়ার দরকার ছিল। তারপরও আপনারা আয়োজন করেছেন তার জন্য কৃতজ্ঞতা জানাই। আমাকে আপনারা ২০ বছর যাবত ভোট দেন বলেই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হয়েছি, সাহস পেয়েছি, উপজেলা চেয়ারম্যান হয়েছি শেষ পর্যন্ত আপনারা আমাকে মহান সংসদে পাঠিয়েছেন। অনেক ঋণি আমি আপনাদের কাছে। ঋণ শোধ করার যোগ্যতা আমার নেই, রক্ত দিয়েও না, চামড়া দিয়েও না। তারপরও আস্তে আস্তে ঋণ শোধ করার চেষ্টা করব। এ পর্যন্ত যারাই এমপি হয়েছেন তারা সবাই নিজ নিজ এলাকার প্রতি দরদ দেখিয়েছেন। তাই আমি আন্ধারিয়াপাড়া কে আলোকিত করতে চাই।
এ জুনের মধ্যে আন্ধারিয়াপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে ১টি পাঁচ তলা বিল্ডিং,
আগামীকাল শুক্রবার (১৯ জানুয়ারি) মারকাজ মসজিদের পুকুর মিনিমাম ৪ ফুট খনন করা হবে। যাতে পানি কোনভাবেই না শুকায়,
আগামী জুনের পরে আন্ধারিয়াপাড়া বিডিএস দাখিল মাদ্রাসায় ১টি পাঁচ তলা বিল্ডিং হবে,
গরিব-অসহায় মানুষদের কথা বিবেচনা করে আন্ধারিয়াপাড়া-রাধাকানাই মিলে একটা কলেজ হবে,
জন্মস্থানে নারীর টান থাকে সেহেতু ফুলবাড়িয়া ইউনিয়নে ৩০ কিলোমিটার রাস্তা কাঁচা নাই তাই রাধাকানাই-ফুলবাড়িয়া মিলে ৩০ কিলোমিটার রাস্তা হচ্ছে।
আগামী ১ বছরের মধ্যে ফুলবাড়িয়া ইউনিয়নে একটা রাস্তাও কাঁচা দেখতে চাই না।
আন্ধারিয়াপাড়া মারকাজ মসজিদটি শীততাপ (এসি) নিয়ন্ত্রিত হচ্ছে।
নেশাগ্রস্থদের নেশা ছেড়ে আলোর পথে আসতে নির্দেশ দেন এবং অভিভাবকদের সচেতন হতে অনুরোধ জানান, তা না হলে কোনভাবেই এ অন্যায় মেনে নেওয়া হবে না।

https://www.bkash.com/