ফলোআপ গৌরীপুরে পেট্রল বোমা হামলার ঘটনায় ২৬ জনের নামে মামলা


প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ১৮, ২০১৭, ৮:৫০ AM
ফলোআপ গৌরীপুরে পেট্রল বোমা হামলার ঘটনায় ২৬ জনের নামে মামলা

মশিউর রহমান কাউসার, গৌরীপুর : ময়মনসিংহের গৌরীপুরে প্রতিবাদ মিছিলে পেট্রল বোমা হামলার ঘটনায় অচিন্তপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম অন্তর বাদী হয়ে স্থানীয় এগারজন ও অজ্ঞাতনামা পনের জনের নামে গৌরীপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন (মামলা নং-১৬ তাং-১৭/১২/১৭ ইং)। গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ দেলোয়ার আহাম্মেদ সোমবার (১৮ ডিসেম্বর) সকালে সাংবাদিকদের সাথে এ বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেন। মামলার আসামীরা হল- এ উপজেলার অচিন্তপুর ইউনিয়নের খান্দার খান্দার গ্রামের স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা রানা আহাম্মেদ কদ্দুছ (২৮), ছিলিমপুরের ছাত্রলীগ কর্মী মজিবুর রহমান সুমন (২৭), গাগলার মাজাহারুল ইসলাম (২৫), শফিক ওরফে টেরা শফিক (৩২), লংকাখোলার যুবলীগ নেতা মোস্তাফিজুর রহমান টিটু, পিন্টু (২৯), অচিন্তপুরের যুবলীগ কর্মী শাহিন মিয়া (৩৫), আজিজুল হাকিম (৩২), লাল মিয়া (২৮), খান্দারের ছাত্রলীগ নেতা জুয়েল মিয়া (২৮), শাহগগঞ্জ এলাকার বাবু মিয়া (২২) ও অজ্ঞাতনামা পনেরজন। মামলার এজাহারে প্রকাশ উল্লেখিত বিবাদীগণ ও তাদের নেতৃত্বদানকারী মাসুদুর রহমান শুভ্র’র সাথে ইউপি চেয়ারম্যান আ’লীগ নেতা শহিদুল ইসলাম অন্তরের রাজনৈতিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কিছুদিন যাবত বিরোধ চলে আসছিল। এ বিরোধের জেরে ঘটনারদিন রাত সাড়ে ৭টার দিকে মামলার বিবাদীরাসহ অজ্ঞাত পনেরজন দেশীয় অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে অতর্কিতে ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ের সামনে চেয়াম্যানের ওপর হামলার চেষ্টা করলে তিনি পরিষদের ভেতরে গিয়ে দরজা জানালা বন্ধ করে আতœরক্ষা করেন। পরে তারা নিচতলার গ্রিলের দরজা ভেঙ্গে পরিষদের দ্বিতীয় তলায় সচিবের কক্ষে ব্যাপক ভাংচুর ও লুটপাট করে। ভাংচুরের শব্দ শুনে ও খবর পেয়ে পরিষদের মেম্বারগণসহ স্থানীয় লোকজন ঘটনাস্থলে আসলে হামলাকারীরা এসময় চলে যায়। এ ঘটনার প্রতিবাদে ওইদনি রাত সাড়ে আটটার সময় ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বারসহ স্থানীয় লোকজন শাহগঞ্জ বাজারে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিল চলাকালীন সময়ে ইউনিয়ন পরিষদের পিছনদিক অন্ধকার এলাকা থেকে দুর্বৃত্তরা অতর্কিতে অন্তত ৫টি পেট্রল বোমা নিক্ষেপ করে। এতে রাস্তার পাশে অবস্থান করা ফুলবাড়িয়া গ্রামের আব্দুর রশিদের পুত্র রিক্সা চালক মতিউর রহমান (২৪) ও কালিজুরি গ্রামের আব্দুল মজিদের পুত্র ধানব্যবসায়ী রফিকুল ইসলাম (৪২) বোমা হামলায় দগ্ধ হন। হামলায় মতি মিয়ার বাম পা ও দু’হাত ঝলসে যায় এবং রিক্সাটি পুড়ে যায়। এব্যাপারে জানতে চাইলে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমান শুভ্র উক্ত ঘটনার সাথে তার সংশ্লিষ্টতার কথা অস্বীকার করে সাংবাদিকদের জানান, মামলার বাদী স্থানীয় এমপি’র গ্রুপ করেন। এমপি’র গ্রুপ না করায় তাকে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে মামলায় ফাঁসানোর চেষ্টা চলছে বলে তিনি অভিযোগ করেন।

https://www.bkash.com/