প্রশাসনের সহযোগিতায় গড়ে ওঠেছে বাঁশ ও বেতের কারখানা


প্রকাশের সময় : জুন ২১, ২০১৬, ১:৫৩ PM
প্রশাসনের সহযোগিতায় গড়ে ওঠেছে বাঁশ ও বেতের কারখানা

bash-bethমশিউর রহমান কাউসার : ময়মনসিংহের গৌরীপুরে সিধলা ইউনিয়নে মনাটি গ্রামে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে গড়ে ওঠেছে প্রধানমন্ত্রীর প্রকল্প নৃ-তাত্ত্বিক জনগোষ্ঠীর বাঁশ ও বেতের কারখানা। বাঁশ ও বেতের মাধ্যমে এই কারখানায় তৈরী হচ্ছে পরিবারে ব্যাবহারের জন্য নিত্য প্রয়োজনীয় দৃষ্টিনন্দন নানা জিনিসপত্র। কিন্তু এই কারখানার তৈরীকৃত জিনিসপত্র বাজারজাত করতে না পারায় অর্থনৈতিক ভাবে সাফল্যের মুখ দেখতে পারছে না স্থানীয় নৃ-তাত্তিক জনগোষ্ঠীরা। উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে কুটির শিল্প বিষয়ে ওই কারখানার ৫০ জন নারী পুরুষকে ইতিমধ্যে প্রশিক্ষন দেয়া হয়েছে। প্রশিক্ষণ শেষে ওই কারখানার নারী পুরুষ পুরোদমে বাঁশ ও বেতের জিনিসপত্র তৈরীতে ব্যস্ত সময় অতিবাহিত করছে। গৌরীপুর ট্রাইবাল ওয়েল ফেয়ার এসসোসিয়েশনের সভাপতি গৌরাঙ্গ চন্দ্র ক্ষত্রিয় জানান, তাদের এই সমিতিটি স্থাপিত হয় ১৯৯৬ সনে। আগে তারা গবাদি পশু পালন করতো। বর্তমানে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মর্জিনা আক্তারের উৎসাহ ও সার্বিক সহযোগীতায় বাঁশ ও বেতের কারখানা স্থাপন করেছেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মর্জিনা আক্তার জানান, ওই কারাখানায় বাঁশ ও বেতের তৈরী জিনিসপত্রগুলো দেখতে খুবই সুন্দর ও দাম খুবই কম। তাই কারখানায় তৈরীকৃত জিনিসপত্র বাজারজাত করার জন্য পৌর শহরে বিপনী খোলার চেষ্টা চালাচ্ছেন তিনি।

সম্পাদনায়- আব্দুস ছাত্তার

https://www.bkash.com/