জনপ্রিয়তায় ঈষান্বিত হয়ে আমাকে নিয়ে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে- ওয়াহেদ


প্রকাশের সময় : মে ১৭, ২০১৮, ১১:১৭ AM
জনপ্রিয়তায় ঈষান্বিত হয়ে আমাকে নিয়ে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে- ওয়াহেদ

জাহিদুল ইসলাম খান, ভালুকা : সত্য চিরদিন সত্য।সত্যকে মিথ্যা দিয়ে ঢাকা যায় না।সত্য তার নিজের শক্তিতেই সকল ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্ন করে উদ্ভাষিত হয়। কোন ষড়যন্ত্রকারীই ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগ নেতা,বিশিষ্ট শিল্পপতি,ভালুকা থেকে আ’লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী আলহাজ্ব এম এ ওয়াহেদকে সমাজের মানুষের কাছে ছোট করতে পারবে না।তার সমাজসেবামূলক কার্যক্রমের কারনে ওয়াহেদ সমাজের সর্বস্তরের মানুষের কাছে প্রিয় মানুষ হয়ে উঠেছেন।তাই তার ব্যাপক জনপ্রিয়তায় ঈষান্বিত হয়ে একটি কুচক্রী মহল তাকে হেয় প্রতিপন্ন করার উদ্দেশ্যে বিভিন্ন ভাবে ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। তারই অংশ হিসাবে একটি স্বার্থনেষী মহল বিভিন্ন অপপ্রচারে নেমেছে। গত কয়েকদিন আগে দুটি অনলাইন প্রত্রিকায় “ভালুকায় সরকারী জমিতে বঙ্গবন্ধুর নাম পরিবর্তন করে ব্যক্তির নামে স্কুল ভবন” শিরোনামে খবর প্রকাশিত হয়। খবরটির তীব্র প্রতিবাদ ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছে আলহাজ্ব এম ওয়াহেদ। তিনি গত বুধবার ডাকাতিয়া’র আংগারগাড়া তার নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন ।
তিনি বলেন,আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শে ও জননেত্রী শেখ হাসিনার অনুপ্রেরণায় রাজনীতি করি। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমার আতœার সাথে মিশে আছে। কিছু কিছু কুচক্রী মহল বঙ্গবন্ধুর সাথে আমার নামে অপপ্রচার দিচ্ছে । আমি বঙ্গবন্ধুকে ভালবেসে তার আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে বিগত ২০বছর যাবত ভালুকায় বঙ্গবন্ধুর শাহাদাৎ বার্ষিকীতে প্রতিবছর ১১টি ইউনিয়ন ও পৌরসভায় প্রায় ২০লক্ষ টাকা অনুদান দিয়ে আসছি। এখানে ভবন বঙ্গবন্ধুর নামে হবে এতে আমার কোন আপত্তি থাকার কথা নয়। কিন্তু গত ২০১৬ সালে আমি আমার নিজ অর্থায়নে স্কুল পরিচালনার স্বার্থে আমি একটি তিন তলা ভবন করে দেই । স্কুলের তৎকালীন কমিটি ভবনটি আমার নামে নামকরণ করে। তখন এই ব্যাপারে কোন কথা হয় নাই,কিন্তু বর্তমানে আমি এমপি নির্বাচনের প্রার্থী হওয়া এবং নির্বাচনের আগ মূহুর্তে এই ব্যাপারে অপপ্রচার চালানো আমি মনে করি আমাকে বির্তর্কিত করার একটি ব্যর্থ প্রয়াস। আমার সাথে বঙ্গবন্ধু পরিবারের একটি সুসম্পর্ক আছে এটা নষ্ট করার জন্য একটি মহল এই অপপ্রচার দিচ্ছে। ভবনের নাম ফলক ও উদ্বোধনের খবর ভালুকার জনপ্রিয় অনলাইন পোর্টাল “ভালুকা.কম”এ সেই সময়ে প্রচার করা হয়। আমি ব্যক্তিগত ভাবে বিশ্বাস করি জননেত্রী শেখ হাসিনা কোন অপপ্রচারে কান না দিয়ে ভালুকার সামগ্রীক উন্নয়নে ,জনগনের ভালবাসার প্রতিদান ও নৌকাকে বিপুল ভোটে বিজয়ী করার লক্ষ্যে আমাকে এইবারের নির্বাচনে নৌকা প্রতীক দিবেন। আমি নিতে আসি নাই ,দিতে এসেছি । এই নীতিকে নিজ অন্তরে লালন করে জনগনকে ভালবেসে পিছিয়ে পড়া ভালুকার উন্নয়নে কাজ করে যাবো। আমার প্রিয় নেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা এখন শুধু আমাদের নেত্রী নন,তিনি এখন বিশ্বনেত্রী,বিশ্বের ক্ষমতাধর ব্যক্তিদের ও দেশের সাথে তাল মিলিয়ে তিনি বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। প্রিয় নেত্রীর জন্য আল্লাহর কাছে দোয়া চাই তিনি যেন জননেত্রী শেখ হাসিনাকে আরও নেক হায়াত দান করেন। তিনি সর্বশেষ ভালুকাবাসীকে সকল অপপ্রচারের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার আহবান জানান।
আংগারগাড়া ইউনাটেড উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আতিকুজ্জামান লস্কর জানান, সেই সময় ভবনের নাম ফলক উদ্বোধন করেন ভালুকা উপজেলা পরিষদের সম্মানিত চেয়ারম্যান আলহাজ্ব গোলাম মোস্তুফা এবং ভবনটি শুভ উদ্বোধন করেন ভালুকার সাংসদ অধ্যাপক ডাঃ এম আমানউল্লাহ।

https://www.bkash.com/