গৌরীপুর উপজেলা যুবলীগের স্থগিতকৃত সম্মেলন ২৮ ফেব্রুয়ারি


প্রকাশের সময় : ফেব্রুয়ারী ৪, ২০১৮, ১২:৩৯ PM
গৌরীপুর উপজেলা যুবলীগের স্থগিতকৃত সম্মেলন ২৮ ফেব্রুয়ারি

মশিউর রহমান কাউসার, গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) :  ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলা যুবলীগের রবিবারের সম্মেলন স্থানীয় আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দের হস্তক্ষেপ ও যুবলীগের নেতা-কর্মীদের আন্দোলনের মুখে স্থগিত করা হয়েছে। স্থগিতকৃত সম্মেলন ২৮ ফেব্রুয়ারী সম্পন্ন করার খসড়া তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। ময়মনসিংহ জেলা যুবলীগের আহবায়ক এডভোকেট আজহারুল ইসলাম এ বিষয়ে নিশ্চিত করে বলেন স্থানীয় এমপি মহোদয়ের সাথে সমন্বয় করে উক্ত তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। পরবর্তীতে আলোচনা সাপেক্ষে সম্মেলনের স্থান নির্ধারণ করা হবে। উল্লেখ্য রবিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) ময়মনসিংহ শহরের সিকে ঘোষ রোডে আব্দুল্লাহ কমিউনিটি সেন্টারে গৌরীপুর উপজেলা যুবলীগের ৩০ নভেম্বরের স্থগিতকৃত সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল।
জানা গেছে প্রথম অধিবেশন ছাড়াই দ্বিতীয় অধিবেশন, উপজেলার সম্মেলন জেলায় স্থানান্তর, স্থানীয় আওয়ামীলীগ ও যুবলীগ নেতৃবৃন্দকে এ বিষয়ে অবগত করা হয়নি। এর প্রতিবাদে স্থানীয় যুবলীগের নেতা-কর্মীরা শুক্রবার রাতে গৌরীপুর পৌর শহরে বিক্ষোভ মিছিল-সমাবেশের মাধ্যমে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেন। উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হাসান আজাদ লিটন জানান উক্ত সম্মেলন বিষয়ে তিনি সম্পূর্ণ অজ্ঞাত ছিলেন। ৩০ জানুয়ারি একটি ফেইসবুক স্ট্যাটাসের মাধ্যমে এ বিষয়টি জানেন। তিনি বলেন স্থানীয় একটি কুচক্রী মহলের এজেন্ডা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে উপজেলার সম্মেলন জেলায় স্থানান্তরিত করা হয়েছিল। যা সম্পূর্ণ অগঠনতান্ত্রিক, অনৈতিক ও অন্যায়। তাছাড়া এ সম্মেলন বিষয়ে স্থানীয় এমপি ও আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দের সাথে কোন প্রকার সমন্বয় করা হয়নি। যুবলীগের সম্মেলন নিয়ে ইতোমধ্যে উত্তপ্ত পরিবেশ সৃষ্টি হওয়ায় উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক বাবু বিধু ভূষণ দাস ও পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি পৌর মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলামসহ দলের অন্যান্য সিনিয়র নেতৃবৃন্দের স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয় উপজেলা যুবলীগের প্রথম অধিবেশন না করেই দ্বিতীয় অধিবেশন আহবান করায় যুবলীগের একটি বৃহৎ অংশ চরমভাবে হতাশ ও ক্ষুব্দ হয়ে শহরে একটি বিক্ষোভ মিছিল করেছে। এ নিয়ে দলের মাঝে চরম বিশৃংখলা সৃষ্টির সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। যে কোন সময় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের সৃষ্টি হতে পারে। যা আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সরাসরি বিরূপ প্রভাব ফেলবে। তাই রবিবারের সম্মেলন স্থগিত করে পরবর্তী যেকোন সময় গৌরীপুরে তা সম্পন্ন করার জন্য জেলা যুবলীগের নেতৃবৃন্দের প্রতি আহবান জানানো হয়েছে। #

https://www.bkash.com/