গৌরীপুরে বিদ্যালয়ের সভাপতির বিরুদ্ধে নারী শিককে মারধরের অভিযোগ


প্রকাশের সময় : মার্চ ১, ২০১৮, ২:১৭ PM
গৌরীপুরে বিদ্যালয়ের সভাপতির বিরুদ্ধে নারী শিককে মারধরের অভিযোগ

মশিউর রহমান কাউসার, গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি ঃ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের স্লিপের টাকা দিতে অপরাগতা স্বীকার করায় মাহবুবা আক্তার (৩২) নামে এক প্রধান শিক্ষককে মারধরের অভিযোগ ওঠেছে এসএমসি কমিটির সভাপতি আবু সাঈদ (৫২) ও তার পুত্র বাবুর (২৮) বিরুদ্ধে। বুধবার (২৮ ফেবুয়ারি) বিকেল ৩ টার দিকে ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার চরশ্রীরামপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনাটি ঘটে। এ হামলার ঘটনায় ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাহবুবা আক্তার বাদী হয়ে ওইদিন গৌরীপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
অভিযোগে প্রকাশ, ঘটনারদিন বিকেলে উল্লেখিত বিদ্যালয়ের এসএমসি কমিটির সভাপতি মোঃ আবু সাঈদ (৫২) উত্তেজিত হয়ে প্রধান শিকের কে ঢুকেন। এসময় তিনি বিদ্যালয়ের নামে সরকারি বরাদ্ধকৃত স্লিপ কমিটির ৫০ হাজার টাকা তার হাতে দেয়ার জন্য প্রধান শিক্ষককে চাপ প্রয়োগ করেন। বিদ্যালয়ে কোন কাজ না করেই টাকা দিতে অপরাগতা স্বীকার করায় শিক্ষক মাহবুবার সাথে বাকতিন্ডায় জড়িয়ে পড়েন সভাপতি এবং এক পর্যায়ে ক্ষুব্দ হয়ে তাকে মারধর করে চলে যান। এর কিছুক্ষণ পর আবু সাঈদ ও তার পুত্র বাবু লাঠি সোটা নিয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও সহকারি শিক্ষকগণদের মারধর করতে বিদ্যালয়ে আসেন। এসময় দরজা-জানালা বন্ধ করে তারা আত্মরক্ষা করেন। মাহবুবা আক্তার অভিযোগে আরও উল্লেখ করেন ইতিপূর্বে সভাপতি বিদ্যালয়ের বিদ্যুৎ সংযোগের জন্য বরাদ্ধের ৩০ হাজার টাকা আত্মসাৎ করেন। ওই সময় প্রতিবাদ করলে তিনি অকথ্য ভাষায় গালাগাল করে চুলের মুঠি ধরে স্কুল থেকে বের করে দেওয়ার হুমকী দিয়েছিলেন। এ বিষয়ে জানতে চেয়ে আবু সাঈদের মুঠোফোনে কল করা হলে তার ভাই বকুল মিয়া রিসিভ করে বলেন প্রধান শিক্ষককে মারধর করা হয়নি। বিদ্যালয়ের নানা অনিয়ম নিয়ে ঘটনার সময় তার ভাইয়ে সাথে প্রধান শিক্ষকের একটু কথা কাটাকাটি হয়েছিল। এ ব্যাপারে গৌরীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তারেকুজ্জামান (ওসি তদন্ত) লিখিত অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা স্বীকার করে সাংবাদিকদের জানান, তদন্ত করে ঘটনার সত্যতা পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। #

https://www.bkash.com/