গৌরীপুরে ডাচ-বাংলা ব্যাংকে গ্রাহক হয়রানীর অভিযোগ


প্রকাশের সময় : জানুয়ারী ৮, ২০১৮, ১০:৫০ AM
গৌরীপুরে ডাচ-বাংলা ব্যাংকে গ্রাহক হয়রানীর অভিযোগ

মশিউর রহমান কাউসার, গৌরীপুর : ময়মনসিংহের গৌরীপুর পৌর শহরে মধ্য বাজারে অবস্থিত ডাচ-বাংলা ব্যাংকে (ফাস্ট ট্র্যাক) যান্ত্রিক ত্রুটির কারনে স্থানীয় গ্রাহকরা টাকা উত্তোলনের ক্ষেত্রে হয়রানীর শিকার হচ্ছে বলে অভিযোগ ওঠেছে। জানা গেছে গত এক সপ্তাহ ধরে এ ব্যাংকের একটি মেশিনে ত্রুটি থাকায় বেশ কয়েকজন গ্রাহকের একাউন্ট থেকে নির্ধারিত টাকা কেটে নেয়ার পর পরিশোধ হয়েছে কম টাকা। এক্ষেত্রে অভিযোগ করেও কোন প্রতিকার পাচ্ছেনা তারা। গৌরীপুর পৌর শহরের মাছুয়াকান্দা এলাকার জয়নাল আবেদীনের পুত্র মোঃ রেজাউল করিম অভিযোগ করে বলেন, ১ জানুয়ারি ১০ হাজার টাকা উত্তোলনের জন্য তিনি ওই ব্যাংকে যান। এসময় তার ০১৯১৮-২৪৯৫৮৩৩ একাউন্ট থেকে ১০ হাজার টাকা কেটে নিলেও মেশিন থেকে বের হয় ৯ হাজার টাকা। তাৎক্ষণিক তিনি এ বিষয়টি ব্যাংকের দায়িত্বরত কর্মকর্তাকে জানালে ব্যাংকের গ্রাহক সেবা কলসেন্টার ১৬২১৬ নাম্বারের যোগাযোগ করার জন্য বলা হয়। রেজাউল ওই নাম্বারে বিষয়টি অবগত করলেও অদ্যবধি পর্যন্ত এর কোন সমাধান পায়নি। সে আরো জানায় ৩০ ডিসেম্বর জনৈক এক নারী এ ব্যাংক থেকে টাকা উত্তোলন করে তার মত হয়রানী শিকার হয়েছে। ঔষধ প্রতিনিধি ওবায়দুল হক জানান, ৩০ ডিসেম্বর তিনি এ ব্যাংকে টাকা উত্তোলনের জন্য গেলে মেশিন থেকে জং ধরা ৫শ টাকার অচল নোট বের হয়। এ বিষয়ে জানতে চাইলে এ ব্যাংকের দায়িত্বরত কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ব্যাংকের ২৪৯০ নাম্বার মেশিনটিতে ত্রæটি থাকায় মাঝে-মধ্যে গ্রাহকদের সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে। উক্ত বিষয়টি সংশ্লিষ্ট ব্যাংক কর্তৃপক্ষকে অবগত করা হয়েছে। উল্লেখিত ভুক্তভোগী গ্রাহকদের ডাচ-বাংলা ব্যাংকের জেলা ব্রাঞ্চ অফিসে যোগাযোগ করার জন্য বলা হয়েছে।

https://www.bkash.com/