মঙ্গলবার, ০৭ Jul ২০২০, ০২:৫৬ পূর্বাহ্ন

কখন পড়তে হয় ‘ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন’

innalillahe

ফুলবাড়িয়া নিউজ 24ডটকম : পরিচিত হোক কিংবা অপরিচিত। আত্মীয় হোক কিংবা অনাত্মীয়। মৃত্যুর খবর কানে আসলেই আমরা বলি ইন্ন-লিল্লাহি ওয়া ইন্ন-ইলাইহি রাজিউন। এই দোয়া কি শুধু মৃত্যুর সংবাদ শুনলেই বলতে হয়? না এটা শুধু মৃত্যুর সংবাদ নয় বরং যে কোন দুঃসংবাদ শুনলেই এই দোয়া পড়তে হয়। আমাদের সমাজের মানুষ মনে করে থাকেন এই দোয়া শুধু মৃত্যুর সংবাদ শুনলে পড়তে হয়। এটা সম্পূর্ণ ভুল ধারণা। এবিষয়ে পবিত্র কুরআনে আল্লাহপাক ইরশাদ করেছেন, তারা (মুমিনরা) কোন মুসিবতে আক্রান্ত হলে বলে ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন (আমরা আল্লাহর এবং নিশ্চয় আল্লাহর কাছেই ফিরে যাব)।’-(বাকারা: ১৫৬) এ আয়াত থেকে স্পষ্ট বোঝা যায় যে, একজন মুমিনের যে কোন ধরণের বিপদ-আপদ সামনে এলেই বলবে “ ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন”

মুমিন ব্যক্তির এ কথা বলার অর্থ কেবল মুখে বলা নয় বরং মনে মনে একথা স্বীকার করে নেয়া যে, “আমরা আল্লাহর কর্তৃত্বাধীন।” তাই আল্লাহর পথে যখন আমাদের যে কোন জিনিস কুরবানী করা হয়, তা ঠিক তার সঠিক ক্ষেত্রেই ব্যয়িত হয়। যার জিনিস ছিল তার কাজেই ব্যয়িত হয়েছে। আর “আল্লাহ্রই দিকে আমাদের ফিরে যেতে হবে”—এর অর্থ হচ্ছে, চিরকাল আমাদের এ দুনিয়ায় থাকতে হবে না। একদিন আল্লাহরই কাছে যেতে হবেই।

একটি হাদিসে এসেছে, হযরত উম্মে সালামা (রা.) বলেন, আমি রাসূল (সা.) কে বলতে শুনেছি, কোন মুমিন ব্যক্তি যখন কোনো বিপদ-আপদে আক্রান্ত হয় এবং আল্লাহ তাকে যা বলতে বলেছেন তাই বলে, ‘ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন, আল্লাহুম্মা আজিরনি ফি মুসিবাতি ওয়া আখলিফ-লি খাইরাম মিনহা।

অর্থ:তখন আল্লাহ তাকে ঐ মুসিবতের উত্তম বদলা এবং আগের চেয়ে উত্তম বিকল্প দান করেন। -(সহীহ মুসলিম, হাদীস: ৯১৮)
সংগৃতি- আমাদের সময় ডটকম

Please Share This Post in Your Social Media

কপিরাইট © ফুলবাড়িয়ানিউজ২৪ ডট কম ২০২০
Design & Developed BY A K Mahfuzur Rahman