এক পরিবারের ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড


প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ৩, ২০২৩, ৪:৩০ PM
এক পরিবারের ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড

যৌতুক দাবি করে সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে হত্যার দায়ে এক পরিবারের পাঁচজনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আজ বৃহস্পতিবার হবিগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. জাহিদুল ইসলাম এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হচ্ছেন- চুনারুঘাট উপজেলার সাদেকপুর গ্রামের রাসেল মিয়া (২৫), তার বড় ভাই কাওছার মিয়া (৩২), মা তাহেরা বেগম (৫০), ছোট বোন হোছনা বেগম (২০) ও বড় বোন রোজী বেগম (২৭)। রায় ঘোষণার সময় কাউছার মিয়া পলাতক ছিলেন।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায়, ২০১৬ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর রাত ১২টা থেকে ৩টার মধ্যে রাসেল তার অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী তাহেরা খাতুন ওরফে আয়েশার কাছে এক লাখ টাকা যৌতুকের দাবিতে মারধর করেন। এতে গুরুতর অবস্থায় তাকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে তিনি মারা যান। ঘটনার ৮ মাস আগে ভিকটিমের বিয়ে হয়।

পরদিন আয়েশার বাবা একই উপজেলার পঞ্চাশ গ্রামের আব্দুস ছত্তার দণ্ডপ্রাপ্তদের বিরুদ্ধে চুনারুঘাট থানায় এজাহার দায়ের করেন। এ মামলায় রাষ্ট্র পক্ষে ১২ সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়। বিশেষ পিপি (২) অ্যাডভোকেট আবুল মনসুর চৌধুরী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

https://www.bkash.com/