,

ThemesBazar.Com

ফুলবাড়িয়ায় ছেলের গলায় বাবার ছুরি : পিতা আত্মহত্যার চেষ্টা

ফুলবাড়িয়া নিউজ 24ডটকম : ফুলবাড়ীয়া উপজেলার কেশরগঞ্জ-ফুলবাড়ীয়া সড়কের (পাকা রাস্তার পাশে) তালতলা মধ্যপাড়া নামক স্থানে গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে এক পাষন্ড পিতা তার ৫ বছরের প্রতিবন্ধি শিশু পুত্রকে গলাকেটে হত্যা করেছে। শিশুপুত্রকে হত্যার পর নিজে গলাকেটে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে। পিতার শারিরীক অবস্থার অবনতির আশংকায় ময়মসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। পারিবারিক অশান্তির কারনে এ হত্যাকান্ড ঘটেছে বলে জানা গেছে। পুলিশ হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত ধারালো চাকু উদ্ধার করেছে।


পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার বরুকা গ্রামের হাজী জয়নাল আবেদীনের পুত্র হাবিবুর রহমান (৩৫) পাশ্ববর্তী চকরাধাকানাই গ্রামে ৮/৯ বছর আগে বিয়ে করে। তাদের ঘরে লাবিব হাসান রিয়েন (৫) নামে শারিরীক প্রতিবন্ধী শিশু পুত্র সন্তান রয়েছে। হাবিবুর রহমান জামালপুরে একটি এনজিওতে চাকরীকালীন সময়ে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। এ খবর প্রথম স্ত্রী শোনার পর ২/৩ মাস আগে হাবিবুরকে স্বামী তালাক দিয়ে সে বাপের বাড়ী চলে যায়।
হাবিবুরের ভগ্নীপতি চান মিয়া জানান, তার শ্যালক হাবিবুর বৃহস্পতিবার জামালপুর থেকে বাড়ীতে আসার কথা তিনি শুনেছেন। তার শারিরীক প্রতিবন্ধী শিশুপুত্রকে নিয়ে পারিবারিকভাবে অশান্তিতে ছিল বলে তিনি শুনেছেন।


স্থানীয় দফাদার মোফাজ্জল হোসেন, মানুষের ভীড় দেখে এগিয়ে গেলে তিনি একটি ধারালো চাকু ও এক জোড়া জুতা দেখতে পান, পরে তিনি ঐগুলো পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন। স্থানীয় অটো চালক শাহাজাহান একটি চিঠি (চিরকুট) পেয়েছেন, সেটিতে হাবিবুর লিখেছেন, তাদের হত্যার পেছনে কেউ দায়ী নয়, সে নিজেই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।
ফুলবাড়ীয়া থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ কবিরুল ইসলাম জানান, শিশুর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশ প্রহরায় উন্নত চিকিৎসার জন্য পিতা হাবিবুর রহমানকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ThemesBazar.Com

     এ জাতীয় আরও সংবাদ