,

ThemesBazar.Com

শাকিব অপু দ্বন্দ্ব চরমে

sakib

ইন্টারনেট : আবারও প্রকাশ্যে শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসের দ্বন্দ্ব। আর এবারের দ্বন্দ্ব একমাত্র ছেলে আব্রাম খান জয়ের জন্মদিনের সামান্য একটা কার্ড নিয়ে। কার্ডে ব্যবহার করা হয়েছে আব্রামের (শাকিব-অপুর ছেলে) সঙ্গে অপু বিশ্বাসের ছবি। শাকিব খানের ছিল শুধু নাম। ২৮ সেপ্টেম্বর আমাদের সময় পত্রিকার বিনোদন পাতায় এ বিষয়ে বিশাল এক প্রতিবেদন ছাপাও হয়েছিল। যার শিরোনাম ছিলÑ ‘অপুর কারণেই শাকিব আলাদা, আব্রামও পারল না এক করতে’। প্রতিবেদনের প্রতিবেদক অপুকে তখনই প্রশ্ন করেছিলেন, কার্ডে শাকিব খানের ছবি নেই কেন? এমন প্রশ্নের এক খোঁড়া উত্তর দিয়েছিলেন অপু। বলেছিলেন, ‘আসলে আব্রামের সঙ্গে আমার আর শাকিবের কোনো ভালো ছবি নেই। তাই কার্ডে দিতে পারিনি।’ এবার এ বিষয়ে মুখ খুললেন সুপারস্টার শাকিব খান। তিনি বলেন, ‘আমার ছেলের জন্মদিন অনুষ্ঠানের কার্ডে আমার ছবি কোথায়? অপু সন্তানের সঙ্গে নিজের ছবি দিয়েছে, কিন্তু আমার ছবি নেই! আমি কি জয়ের বাবা না? জন্মদিনের অনুষ্ঠানটা যেন ভালোভাবে করতে পারে, এ জন্য আমি তো এক মাস আগেই ৫ লাখ টাকা দিয়েছি অপুকে। অথচ আমার টাকায় জন্মদিনের অনুষ্ঠান হলো, আর কার্ডে আমার ছবি নেই! এত বড় অপমানের পর আমি আসি কীভাবে এই অনুষ্ঠানে? এ বিষয়টিতে অনেক কষ্ট পেয়েছি। আমি এটা অপুর কাছ থেকে আশা করিনি। আমি বিদেশ থেকে ছেলের জন্য কসমেটিকস, ড্রেস ও সোনার চেইন এনেছিলাম। সবই তো দিয়েছি। এতকিছুর পরও আমাকে কেন সবার কাছে ছোট করা হচ্ছে? কার্ডে আমার ছবি নেই, এটা আমি মানতেই পারছি না।’

অপুর এমন অনেক কথা ও কাজের কারণেই মূলত শাকিব খান তার থেকে দূরে আছেন বলে মনে করছেন অনেকে। তার পরও সবাই ভাবছিলেন ছেলের জন্য হলেও দুজন একসঙ্গে থাকবেন বা থাকার অভিনয় করবেন। কিন্তু এবার সেই ছেলের জন্যই তাদের দ্বন্দ্ব নিয়ে আবার চায়ের কাপে ঝড় তুলছেন সাধারণ মানুষ। জন্মদিনের (২৭ সেপ্টেম্বর) অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন না চিত্রনায়ক শাকিব খান। অথচ অনুষ্ঠানে তার স্ত্রী অপু বিশ্বাস হাসিখুশি সময় কাটিয়েছেন আমন্ত্রিত অতিথিদের সঙ্গে। আবার তাকে প্রশ্ন করা হলো, কার্ডে শাকিব খানের ছবি নেই কেন? এবারও তিনি কাছাকাছি উত্তর দিলেন, সঙ্গে যোগ করলেন নতুন কারণ। বললেন, ‘আসলে আমাদের তিনজনের একসঙ্গে ভালো ছবি নেই। যে ছবিটি আছে, সেখানে আমাকে একটু মোটা লাগে। এত সুন্দর একটি আয়োজনে এমন ছবি আমি দিতে চাইনি। তা ছাড়া কার্ডে জয়ের বাবা হিসেবে শাকিবের নাম ও নাম্বার দেওয়া হয়েছে। আমি বিশেষ কিছু মাথায় রেখে তার ছবি ছাপিনি, এমনটি নয়।’ অপু আরও বলেন, ‘শুরুতে ছেলের জন্মদিনের অনুষ্ঠান নিয়ে শাকিব আমার সঙ্গে একমত ছিলেন। সবকিছুর পরিকল্পনা করা হচ্ছিল। পরে শাকিব এই সিদ্ধান্ত থেকে সরে দাঁড়ান। এর মধ্যে আমাকে জানানো হলো যে, তিনি জন্মদিনের আয়োজনে থাকবেন না, আমি যেন আমার মতো করে অনুষ্ঠানটি করি। বিষয়টিতে আমি কিছুটা আহত হয়েছিলাম।’

কিন্তু শাকিব খান বলেছেন তার টাকায় অনুষ্ঠান অথচ তারই ছবি নেই? এমন প্রশ্নের উত্তরে অপু বলেন, ‘শাকিব এর আগেও টাকা-পয়সা নিয়ে কথা বলেছেন। আমি তার স্ত্রী, জয় তার সন্তান। তিনি কত টাকা দিয়েছেন বা দেননি এ নিয়ে এভাবে বলার কী আছে! এসব কথা বলে তিনি কাকে ছোট করছেন জানি না। আমি মনে করি, তিনি কারোর দ্বারা বিভ্রান্ত হচ্ছেন। আমি তাদের উদ্দেশে বলতে চাই, আপনারা আমার স্বামীকে ছোট করবেন না।’

শাকিব-অপুর বক্তব্য শুনে চলচ্চিত্রসংশ্লিষ্ট ও তাদের ভক্তরা অনেক কথাই বলেছেন। এর মধ্যে অনেকে বলছেন, তারা দুজন কেউই ছোট বাচ্চা না। সামান্য একটা কার্ড নিয়ে তারা যা শুরু করেছেন, ভবিষ্যতে না জানি আরও কত কিছু দেখতে হয়!উল্লেখ্য, বড় পর্দার জনপ্রিয় জুটি শাকিব খান ও অপু বিশ্বাস ২০০৮ সালে বিয়ে করেন। গত বছর ২৭ সেপ্টেম্বর কলকাতার একটি হাসপাতালে আব্রাম খান জয়ের জন্ম হয়। এর সবকিছুই গোপন ছিল। ১০ এপ্রিল বিকালে ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে একটি টিভি লাইভ অনুষ্ঠানে এসে অপু বিশ্বাস সবকিছু ফাঁস করে দেন। এর পর থেকেই প্রকাশ্যে দ্বন্দ্ব শুরু হয় শাকিব-অপুর মধ্যে।

সূত্র- আমাদের সময় অন লাইন

ThemesBazar.Com

     এ জাতীয় আরও সংবাদ